About Us
Chairman massage
Mission Vision
Vision 2020
Managing Committee
Founder Member
History of Society
PRODUCT
Land Development
Flat Development
H.D.P.S.
F.D.R.
DOWNLOAD
CAREER
GALLERY
Gallery
C.S.R.
NEWS
CONTACT US

ইতিহাস গরে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নতুন পরিষদ নির্বাচিত:


বিগত ১৩ নভেম্বর রোজ শুক্রবার ২০১৫ খ্রীষ্টাব্দ বটমলী হোম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে দি মেট্রোপলিটান খ্রীষ্টান কো-অপারেটিভ হাউজিং সোসাইটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচন কমিটির সভাপতি সহকারী নিবন্ধক(সমিতি) বিভাগীয় সমবায় কার্যালয়, ঢাকা বিভাগ জনাব মো: আখিরুল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ নির্বাচনী বিশেষ সাধারণ সভায় সোসাইটির সহ¯্রাধিক সদস্য-সদস্যা উপস্থিত ছিলেন। সকাল ১১টায় অনুষ্ঠিত এ নির্বাচনী সাধারণ সভায় নির্বাচন কমিটির সদস্য জনাব মো: রুহুল আমিন, মেট্রোপলিটান থানা সমবায় অফিসার, মিরপুর ঢাকা, নির্বাচন কমিটির অপর সদস্য জনাব মো: আব্দুর রহমান, পরিদর্শক, জেলা সমবায়কার্যালয়, ঢাকা, সোসাইটির চেয়ারম্যান আগষ্টিন পিউরীফিকেশনসহ সমবায়ের অন্যান্য কর্মকর্তাগণ সোসাইটির সেক্রেটারি ইমানুয়েল বাপ্পী মন্ডলের আহবানে মঞ্চে আসন গ্রহণ করেন।

নর্বাচন কমিটির সভাপতি ও নির্বাচনী সাধারণ সভার সভাপতি জনাব আখিরুল আলম সকলকে শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন “দি মেট্রোপলিটান খ্রীষ্টান কো-অপারেটিভ হাউজিং সোসাইটি লিঃ” এর নির্বাচন আজকে এখানে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। তবে এবারে সদস্য-সদস্যাদের ভোট দেয়ার প্রয়োজন নেই কারণ নির্বাচন করার জন্যে একটিমাত্র পরিষদ আছে যাদের বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার মতো কোন প্রার্থী নেই। বিষয়টি মূলত বিগত ২৭/১০/২০১৫ তারিখেই আমরা ঘোষণা করেছি। যেহেতু আজকে নির্বাচনী তফসিল অনুসারে নির্বাচন অনুষ্ঠান হবার কথা সেজন্যেই আজকে এই নির্বাচনী সাধারণ সভা আহবান করা হয়েছে। তিনি বলেন আমার আজকে করার তেমন কোন কাজ নেই। কেবলই নির্বাচনের ফলাফল আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করা আমার দায়িত্ব। তিনি সকলকে কৃতজ্ঞতা জানিয়ে ২০১৫-২০১৮ কার্যকালের জন্যে নবনির্বাচিত পরিষদকে অভিনন্দন জানান এবং আগামী তিন বছর ভাল সেবা দিয়ে সোসাইটির উন্নয়নে ভূমিকা রাখার আহবান জানিয়ে তার বক্তব্য শেষ করেন এবং নির্বাচন পরিচালনা পর্বের সমাপ্তি ঘোষণা করেন। উপস্থিত সকলে নবনির্বচিত পরিষদকে বিপুল করতালির মাধ্যমে অভিনন্দন জানান।

শপথ গ্রহণ (১৯ নভেম্বর ২০১৫)

বাংলাদেশী খ্রিস্টানদের সবচেয়ে বড় সমবায়ী আর্থিক প্রতিষ্ঠান হচ্ছে ‘দি মেট্রোপলিটান খ্রীষ্টান কো-অপারেটিভ হাউজিং সোসাইটি লিঃ’। ১৯ নভেম্বর ২০১৫ খ্রিস্টাব্দ সন্ধ্যা ৬ঃ০০ ঘটিকায় চার্চ কমিউনিটি সেন্টারে (৯, তেজকুনীপাড়া, তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫)নব নির্বাচিত কর্মকর্তাবৃন্দ শপথ গ্রহণ করেন। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আর্চবিশপ প্যাট্রিক ডি’রোজারিও, সিএসসি (ধর্মপাল, ঢাকা মহাধর্মপ্রদেশ)। এ ছাড়াও বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মিঃ পিউস কস্তা (অতিরিক্ত সচিব, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার; চেয়ারম্যান, মৎস্য উন্নয়ন অধিদপ্তর), জনাব মোঃ রুহুল আমিন (মাননীয় যুগ্ম-নিবন্ধক, সমবায় অধিদপ্তর), মিঃ নির্মল রোজারিও (চেয়ারম্যান, দি সেন্ট্রাল খ্রীষ্টান এসোসিয়েশন অব কো-অপারেটিভ লিঃ), মিঃ বাবু মার্কুস গমেজ (প্রেসিডেন্ট, দি খ্রীষ্টান কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লঃ, ঢাকা), অনুষ্ঠানের সভাপতি মিঃ আগষ্টিন পিউরীফিকেশন (চেয়ারম্যান, দি এমসিসিএইচএস লিঃ) সহ নব নির্বাচিত বোর্ডের সদস্য-সদস্যাবৃন্দ।

শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানের শুরুতে খ্রিস্টযাগ উৎসর্গ করেন তেজগাঁও ধর্মপল্লীর সহকারী পাল-পুরোহিত ফাদার ম্যাক্সওয়েল টমাস। খ্রিস্টযাগে তিনি বলেন, বর্তমানে খ্রিস্টান সমাজে অর্থনৈতিক মুক্তির নিমিত্তে অনেক আর্থিক প্রতিষ্ঠান কাজ করে যাচ্ছে। হাউজিং সোসাইটি তাদের মধ্যে অন্যতম। প্রতিটি আর্থিক প্রতিষ্ঠানে অনেক প্রলোভন থাকে। সব প্রলোভন জয় করে সমাজের সকলকে নিয়ে অর্থনৈতিক মুক্তির পথ সুগম করতে নব নির্বাচিত কর্মকর্তাদের প্রতি আহ্বান জানান।

খ্রিস্টযাগের পরপরই মঞ্চে আসনগ্রহণ করেন অতিথিবৃন্দ। মঞ্চে উপস্থিত অতিথিবৃন্দকে উদ্বোধনী নৃত্যের (পরিচালনায়, মিঃ ভিক্টর শেখর রোজারিও) তালে তালে ফুলের শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করা হয়।

নব নির্বাচিত বোর্ডকে শপথ বাক্য পাঠ করানোর আগে ঢাকা মহাধর্মপ্রদেশের প্রদেশপাল আর্চবিশপ প্যাট্রিক ডি’রোজরিও, সিএসসি বলেন, দি মেট্রোপলিটান খ্রীষ্টান হাউজিং সোসাইটি লিঃ একটি খ্রিস্টান সংগঠন, তাই শপথও হবে খ্রিস্টীয়। আজ আমি আনন্দিত কারণ শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানের শুরতেই এখানে খ্রিস্টযাগ উৎসর্গ করা হয়েছে। এরপর তিনি নব নির্বাচিত বোর্ডকে শপথ বাক্য পাঠ করান।

নব নির্বাচিত কমিটির পক্ষে সকলকে স্বাগত ও শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করে সেক্রেটারী ইম্মানুয়েল বাপ্পী ম-ল বলেন, বিগত তিনটি বছর আপনাদের সাথে কাজ করেছি। আপনাদের অনেক ভালোবাসা, সাহায্য-সহযোগিতা পেয়েছি। এ জন্য আপনাদের সকলকেঅবনত চিত্তে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই। আজ স্মরণ করি যাঁরা বিগত ৩৯ বছর আগে অনেক ত্যাগ-সাধনার মাধ্যমে অর্থনৈতিক মুক্তির লক্ষ্যে আমাদের জন্য এই সোসাইটি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন।তিনি আরও বলেন, আমাদের সোসাইটির স্লোগান হচ্ছে,“আমরা গৃহ সমস্যা সমাধানে অঙ্গীকারাবদ্ধ।” আমরা নিরন্তর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি সোসাইটির এই উদ্দেশ্যকে সাফল্যম-িত করার জন্য। এ ছাড়াও আমরা ১৪টির অধিক প্রজেক্ট নিয়ে কাজ করছি। নতুন গির্জা নির্মাণ ও ম-লী স্থাপনেও সোসাইটি সর্বোচ্চ সহযোগিতা করে যাচ্ছে। আমরা ম-লীর পাশে আছি, ম-লীও যেন সব সময় আমাদের পাশে দাঁড়াই। গত কার্যকরী পরিষদের মেয়াদকালে আমরা সোসাইটিকে দুর্নীতি মুক্ত করেছি। খ্রিস্টভক্তদের দোরগোড়ায় সোসাইটির সেবা পৌঁছিয়ে দিয়েছি।

বিদায়ী বোর্ডে দায়িত্ব পালন করার জন্য ভিক্টর এস, রোজারিও, সুশান্ত টি, রিবেরু ও মিঃ চিত্ত চিরানকে সোসাইটির পক্ষ থেকে আর্চবিশপ মহোদয় ও সভাপতি উপহার প্রদান করেন।

নব নির্বাচিত কমিটির পক্ষে ব্যবস্থাপক মিঃ রতন হিউবার্ট পিউরীফিকেশন বলেন,আমাদের আবারও মনোনীত করার জন্য আপনাদের সকলকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই। অর্থনৈতিক মুক্তির অন্যতম পথ হলো হাউজিং সোসাইটি ও ক্রেডিট ইউনিয়ন লিঃ।

দি এমসিসিএইচএস লিঃ-এর সভাপতি মিঃ আগষ্টিন পিউরীফিকেশন তাঁর বক্তব্যে বলেন,৩০ নভেম্বর ২০১২ খ্রিস্টাব্দে সাড়ে ১৫ কোটি টাকার দায় মাথায় নিয়ে আমরা কার্যভার গ্রহণ করেছিলাম। বিভিন্ন সময়ে সোসাইটির কর্মকর্তাদের অসাধুতার কারণে সোসাইটি নিন্দীত ও এর ঐক্য বিনষ্টহয়েছে। যারা বিভিন্ন অনৈতিক কাজের সাথে যুক্ত ছিল তাদের বিরুদ্ধে সোসাইটির পক্ষ থেকেযথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। যখন আমরা দায়িত্ব গ্রহণ করি তখন সোসাইটির মোট মূলধনের পরিমাণ ছিল ২১৫ কোটি টাকা। বর্তমান কার্যকরী পরিষদের অক্লান্ত পরিশ্রমেগত তিন বছরে এই মূলধনের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে৩০০ কোটি টাকায়। তরল অর্থ ও স্থাবর-অস্থাবর সহ সোসাইটির মোট সম্পত্তির পরিমাণ বর্তমানে ৩২শ কোটি টাকা। গত ৩ বছরে বিভিন্ন সামাজিক উন্নয়নে সোসাইটি মোট ৫০ লক্ষ টাকার অনুদান দিয়েছে।তিনি আরও বলেন, বর্তমান কার্যকরী পরিষদের ভবিষ্যত পরিকল্পনার মধ্যে রয়েছে সোসাইটির প্রধান কার্যালয় নির্মাণ, বৃদ্ধাশ্রম স্থাপন ইঞ্জিনিয়ারিং সেলের বাস্তবায়ন ইত্যাদি।

বিগত সময়ে যারা অর্থনৈতিক কেলেংকারির সাথে যুক্ত ছিল সোসাইটি ইতিমধ্যেই তাদের সদস্যপদ সম্পূর্ণভাবে খারিজ করে দিয়েছে তবে যারা কেলেংকারির সাথে যুক্ত ছিল না তাদের সদস্যপদ পুর্নবহালের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তাছাড়া সৌহার্দ্য ও সম্প্রীতি বজায় রেখে ঢাকা ক্রেডিটের সাথে একত্রে কাজ ও বিনিয়োগ করার জন্যও সোসাইটি প্রস্তুত আছে।

প্রধান অতিথি আর্চবিশপ প্যাট্রিক ডি’রোজারিও, সিএসসি তাঁর সহভাগিতায় বলেন, শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান শুধু অনুষ্ঠানই নয় এটা একটা অভিষেকও বটে। পবিত্র আত্মা আপনাদের যে গুণ দিয়েছে আজ তা প্রয়োগের অভিষেক অনুষ্ঠান। ঢাকা ক্রেডিট ও হাউজিং সোসাইটি আজ সামাজিক উন্নয়নে যৌথ ভূমিকা রাখছে যা আমাদের সকলের জন্য আনন্দের সংবাদ। আগামীবছরকে পোপ মহোদয় মুক্তির বর্ষ হিসেবে ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি আহ্বান জানিয়েছেন, আমরা যেন সব ধরণের ঋণ ও দৈন্য-দশা থেকে মুক্তি অর্জন করতে পারি। হাউজিং সোসাইটি ও ঢাকা ক্রেডিট ইউনিয়নের যে মিলন আজ আমরা দেখছি তা পবিত্র আত্মার কাজ। আগামীতে সমাজের প্রত্যেকটি কাজে পবিত্র আত্মার দয়া যেন এমনিভাবে প্রতিফলিত হয়।

বর্তমান কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট মিঃ অনিল লিও কস্তা নব নির্বাচিত কমিটির পক্ষে সকলকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। নতুন কর্মপরিকল্পনা, চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সকল সদস্য-সদস্যার সহযোগিতা কামনা করেন।

অনুষ্ঠান সঞ্চালনার দায়িত্বে ছিলেন সোসাইটির সিনিয়র এক্সুকিউটিভ, পাবলিক রিলেশন মি. যোসেফ ডি’ রোজারিও। মায়া মনিকা গাঙ্গুলীর ধন্যবাদ প্রার্থনার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘটে।

উল্লেখ্য গত ১৩ নভেম্বর, ২০১৫ খ্রিস্টাব্দ বেলা ১১ঃ০০ ঘটিকায় বটমলী হোম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে দি মেট্রোপলিটান খ্রীষ্টান কো-অপারেটিভ হাউজিং সোসাইটি লিঃ-এর নির্বাচনী বিশেষ সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। বিশেষ সাধারণ সভায় উপস্থিত ছিলেন নির্বাচন কমিশনের প্রধান জনাব আখিরুল আলম, সদস্য জনাব রুহুল আমিন ও আবদুর রহমান ও হাউজিং সোসাইটির চেয়ারম্যান মিঃ আগষ্টিন পিউরীফিকেশন সহ অন্যান্য কর্মকর্তা ও সদস্য-সদস্যাবৃন্দ। জনাব আখিরুল আলম দি মেট্রোপলিটান খ্রীষ্টান কো-অপারেটিভ হাউজিং সোসাইটি লি:-এর কর্মকর্তাদের বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় বিজয়ী ঘোষণা করেন।

এস.এম.এস সার্ভিস:

সোসাইটির সম্মানিত সদস্য-সদস্যাদের জানানো যাচ্ছে যে, মোবাইল ম্যাসেজে সোসাইটির বিভিন্ন তথ্য পরিবেশন করার জন্য এসএমএস সার্ভিস চালু করা হয়েছে। এলক্ষ্যে নিয়মিত সদস্য-সদস্যাদের মোবাইল নাম্বার সংগ্রহ করা হচ্ছে। আপনার মোবাইল নাম্বার অতিসত্ত্বর সোসাইটির অফিসে জমা দেওয়ার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে।

সোসাইটির ২৯তম বার্ষিক সাধারণ সভা:


বিগত ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৫ খ্রী: দি মেট্রোপলিটান খ্রীষ্টান কো-অপারেটিভ হাউজিং সোসাইটি লিঃ-এর ২৯তম বার্ষিক সাধারণ সভা বটমলীহোম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হয়। সম্মানিত সদস্য/সদস্যাগণ পূর্ব ঘোষিত সময় অনুসারে সকাল ৮ঃ০০ থেকে সভাস্থলে উপস্থিত হয়ে হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর করত: তাদের কর্মসূচি: ০১/ক উপস্থিতি গণনা নিশ্চিত করেন। সকাল ১০:৩০ মিনিটে সোসাইটির মাননীয় চেয়ারম্যান আগষ্টিন পিউরীফিকেশনের অনুমতিক্রমে ব্যবস্থাপনা কমিটির সেক্রেটারি ইমানুয়েল বাপ্পী মন্ডল ২৯তম বার্ষিক সাধারণ সভার কোরাম পূর্ণ হয়েছে এই মর্মে ঘোষণা প্রদান করেন।

সোসাইটির ২৯তম বার্ষিক সাধারণ সভায় সভাপতিত্ব করেন সোসাইটির চেয়ারম্যান আগষ্টিন পিউরীফিকেশন। এই বার্ষিক সাধারণ সভায় সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করেন সোসাইটির সেক্রেটারি ইমানুয়েল বাপ্পী মন্ডল ও সোসাইটির সিনিয়র এক্সিকিউটিভ, পাবলিক রিলেশন যোসেফ ডি’ রোজারিও। প্রধান অতিথি গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব আসাদুজ্জামান খান (কামাল) এম.পি, বিশেষ কারণবশত: অনুপস্থিত থাকায় ২৯তম বার্ষিক সাধারণ সভার সভাপতি আগষ্টিন পিউরীফিকেশন, বিশেষ অতিথি এডভোকেট প্রমোদ মানকিন এম.পি মাননীয় প্রতিমন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয়, পিউস কস্তা, চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ মৎস উন্নয়ন কর্পোরেশন, বিশেষ অতিথি জনাব আসাদুর রহমান খান (কিরণ) ভারপ্রাপ্ত মেয়র গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন, বিশেষ অতিথি জনাব মোঃ রুহুল আমিন, যুগ্ম-নিবন্ধক, ঢাকা বিভাগ, সমবায় অধিদপ্তর, মি. নির্মল রোজারিও, চেয়ারম্যান, দি সেন্ট্রাল খ্রীষ্টান এসোসিয়েশন অব কো-অপারেটিভস লিঃ (কাককো) এবং দি খ্রীষ্টান কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লিঃ ঢাকা-এর প্রেসিডেন্ট এর পরিবর্তে সেক্রেটারি মি. হেমন্ত আই. কোড়াইয়াকে নিয়ে মঞ্চে আসন গ্রহণ করেন। সম্মানিত অতিথি হিসেবে আসন গ্রহণ করেন মীর আফসার আলী, চেয়ারম্যান এশিয়ান টাউন এন্ড ডেভেলপমেন্ট লিঃ, তেজগাঁও ধর্মপল্লীর পালক পুরোহিত শ্রদ্ধেয় ফাদার আলবার্ট টামাস রোজারিও এর প্রতিনিধি শ্রদ্ধেয় ডিকন ফ্রান্সিস দরেছ। ব্যবস্থাপনা কমিটির ভাই-চেয়ারম্যান অনিল লিও কস্তা, ম্যানেজার রতন হিউবার্ট পিউরীফিকেশন, ট্রেজারার জন গমেজ ও ব্যবস্থাপনা কমিটির সকল সদস্য-সদস্যাবৃন্দ, লোন কমিটি ও ইন্টারন্যাল সুপারভিশন ও অডিট কমিটির সদস্যবৃন্দ মঞ্চে আসন গ্রহণ করেন। সোসাইটির সম্মানিত অতিথিবৃন্দ তাদের জন্যে নির্ধারিত আসনে আসন গ্রহণ করেন। উপস্থিত সদস্য-সদস্যাগণ করতালির মাধ্যমে অতিথিদের স্বাগত জানান। সোসাইটির ছাত্র প্রকল্পের ছাত্র-ছাত্রী ও স্টাফবৃন্দ মঞ্চে উপবিষ্ট অতিথিদের ফুলের তোড়া দিয়ে শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেন এবং অতিথিদের বেজ পড়িয়ে দেন।

জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন বিশেষ অতিথি এডভোকেট প্রমোদ মানকিন এম.পি, মাননীয় প্রতিমন্ত্রী, সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার এবং সমবায়ী পতাকা উত্তোলন করেন ২৯তম বার্ষিক সাধারণ সভার সম্মানিত সভাপতি ও সোসাইটির চেয়ারম্যান আগষ্টিন পিউরীফিকেশন, তাঁর সাথে ছিলেন অন্যান্য বিশেষ অতিথিবৃন্দ ও সম্মানিত অতিথিবৃন্দ মঞ্চে উপবিষ্ট সোসাইটির কর্মকর্তাবৃন্দ সকলেই এসময় গভীর শ্রদ্ধা ও ভাবগাম্ভীর্যপূর্ণ পরিবেশে সমবেত কন্ঠে জাতীয় ও সমবায় সংগীত পরিবেশন করেন।

২৯তম বার্ষিক সাধারণ সভার মূল্যায়ন ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন:


বিগত ১৯ সেপ্টম্বর ২০১৫ সন্ধ্যা ৭:০০ ঘটিকায় চার্চ কমিউনিটি সেন্টার, ৯, তেজকুনী পাড়া, তেজগাঁও ঢাকায় “ দি মেট্রোপলিটান খ্রীষ্টান কো-অপারেটিভ হাউজিং সোসাইটি লি:” বিগত ১১ সেপ্টেরম্বর অনুষ্ঠিত ২৯তম বার্ষিক সাধারণ সভার মূল্যায়ন ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। উক্ত সভায় সভাপতিত্ব করেন সোসাইটির চেয়ারম্যান আগষ্টিন পিউরীফিকেশন। সভায় সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করেন সোসাইটির সিনিয়র এক্সুকিউটিভ, পাবলিক রিলেশন যোসেফ ডি’ রোজরিও। উক্ত সভায় সোসাইটির ভাইস-চেয়ারম্যান অনিল লিও কস্তা, সেক্রেটারি ইমানুয়েল বাপ্পী মন্ডল, ম্যানেজার রতন হিউবার্ট পিউরীফিকেশন, ট্রেজারার জন গমেজ, ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্যবৃন্দ ফ্রান্সিস গোমেজ (বাবুল), মিল্টন এস. রোজারিও, সুশান্ত টি. রিবেরু, সুমন বেঞ্জামিন কস্তা, কল্পনা ফলিয়া মারীয়া, বাদল বি. সিমসাং, মায়া মনিকা গাঙ্গুলী, আভ্যন্তরীন নিরীক্ষা ও পর্যবেক্ষন কমিটির চেয়ারম্যান ভিক্টর শেখর রোজারিও, সেক্রেটারি রনেল গমেজ, সদস্য অপূর্ব যাকোব রোজারিও, ঋণ কমিটির চেয়ারম্যান তরুণ ভিক্টর গমেজ, সেক্রেটারি সাগর চার্লস রোজারিও, সদস্যদ্বয় তৃপ্ত চিরাণ, উজ্জ্বল ফ্রান্সিস রিবেরু, সমামানীত উপদেষ্টাবৃন্দ মি. মৃগেন হাগিদক, কর্ণেল(অবঃ) জোসেফ অনিল রোজারিও,মি. নিকোলাস গমেজ, মি. সুনীল সেলেষ্টিন কস্তা, মি. এরিক কুইয়া, মি. হেমন্ত গমেজ, মি.মনু বেনেডিক্ট ক্রুশ, মি. সুনীল গাব্রিয়েল কস্তা, মি. স্বপন এস. রোজারিও, মি. ইউজিন রিবেরু, মি. রুবেন গনসালভেস, বিভিন্ন সমিতির নেতৃবৃন্দ মি. পঙ্কজ গিলবার্ট কস্তা, চেয়ারম্যান, তুমিলিয়া খ্রীষ্টান কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লি:,মি. শ্যামল জেমস রোজারিও, চেয়ারম্যান মঠবাড়ি খ্রীষ্টান কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লি:, মি. ডেভিড প্রবীন রোজারিও, চেয়ারম্যান মাউসাইদ খ্রীষ্টান কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লি:, মি. প্রতাপ এ. গমেজ ধরেন্ডা খ্রীষ্টান কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লি: মি. ডেনিস আলেকজান্ডার কস্তা, চেয়ারম্যান দড়িপাড়া খ্রীষ্টান কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লি:, মি. এলিয়াস পিন্টু কস্তা, ডিরেক্টর দি খ্রীষ্টান কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লি: ঢাকা, মি. জেমস নিখিল দাস চেয়ারম্যান, ক্রেডিট কমিটি, দি খ্রীষ্টান কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লি: ঢাকা, মি. এন্থনী রূপন পিউরীফিকেশন, সদস্য, ক্রেডিট কমিটি, দি খ্রীষ্টান কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লি: ঢাকা, মি. তপন টমাস রোজারিও, প্রেসিডেন্ট সাভার ওয়াই এম সি এ, মি. সুমন রোজারিও, সেক্রেটারি নাগরী খ্রীষ্টান কো-অপারেটিভ ক্রেডি ইউনিয়ন লি, মি. সেবাষ্টিয়ান পিউরীফিকেশন, ভাইস-চেয়ারম্যান, মাউসাইদ খ্রীষ্টান কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লি:, নীড় কমিটির বার্তা সম্পাদক মি. যোসেফ স্টিভ কস্তাসহ প্রায় সাতশত সদস্য-সদস্যা উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিষ্ঠাতা সভাপতির প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি(১৩ জানুয়ারি ২০১৩):


১৩ জানুয়ারি ২০১৩ খ্রীষ্টাব্দ তারিখ সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রয়াত ডানিয়েল কোড়াইয়ার দশম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে তাঁর সমাধিতে পুস্পস্তবক দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন চেয়ারম্যান আগষ্টিন পিউরীফিকেশনসহ ভাইস-চেয়ারম্যান অনিল লিও কস্তা, ডিরেক্টরগণ ও লোন কমিটির সেক্রেটারি। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে, সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ডানিয়েল কোড়াইয়া ছিলেন একজন একনিষ্ঠ সমবায়ী।

প্রকল্প পরিদর্শন(২১ জানুয়ারি ২০১৩):


২১ জানুয়ারি ২০১৩ খ্রীষ্টাব্দ সোসাইটির নবনির্বাচিত কর্মকর্তাগন সোসাইটির বিভিন্ন প্রকল্প পরিদর্শনের অংশ হিসেবে মীরের বাজার প্রকল্প, পূবাইল প্রকল্প, ভাদুন প্রকল্প, দড়িপাড়া প্রকল্প ও নাগরী বাগদী প্রকল্প পরিদর্শন করেন। চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে এই প্রকল্প পরিদর্শনে ভাইস-চেয়ারম্যান অনিল লিও কস্তাসহ ১৫জন কর্মকর্তা উপস্খিত ছিলেন। সরেজমিনে পরিদর্শণ করে তারা প্রকল্প সম্পর্কে বাস্তব ধারণা গ্রহণ করেন এবং আগামীতে প্রকল্প উন্নয়নে কি করা যায় তার একটি রূপরেখা তৈরিতে মনোনিবেশ করেন।

আইজাক গোমেজের স্মরণ সভা(১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৩):


প্রয়াত আইজাক গোমেজের স্মরণ সভা ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৩ খ্রী: সেন্ট লরেন্স চার্চ কমিউনিটি সেন্টার কাফরুলে অনুষ্ঠিত হয়। উল্লেখ করা যেতে পারে যে প্রয়াত আইজাক গোমেজ হাউজিং সোসাইটিতে প্রথমত লোন কমিটির সদস্য হিসেবে ৩ বছর (২০০৩ থেকে ২০০৬), লোন কমিটির চেয়ারম্যান হিসেবে ৩ বছর (২০০৬-২০০৯) এবং ইন্টারন্যাল অডিট এন্ড সুপারভিশন কমিটির চেয়ারম্যান হিসেবে ৩ বছর (২০০৯-২০১২) দায়িত্ব পালন করেছেন। এই স্মরণ সভায় সোসাইটির কর্মকর্তা, উপদেষ্টাসহ অনেক সদস্য উপস্খিত ছিলেন। তাঁর সম্মানে সোসাইটির পক্ষ থেকে একটি শোকবাণী, স্মৃতি স্মারক ও নগদ ১০ হাজার টাকা পরিবারের সদস্যদের হাতে তুলে দেয়া হয়।

ভাটারা প্রকল্প পরিদর্শন(২৭ ফেব্রুয়ারি):


ভাটারা সোসাইটির একটি বিশাল প্রকল্প। এখানে পর্যায়ক্রমে চারটি প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে এবং এর নামকরণ করা হয়েছে ভাটারা ১, ২, ৩ ও ৪ নং প্রকল্প। ২৭ ফেব্রুয়ারি সোসাইটির চেয়ারম্যান আগষ্টিন পিউরীফিকেশন, ভাইস-চেয়ারম্যান অনিল লিও কস্তা, ডিরেক্টর ফ্রান্সিস গোমেজ বাবুল, জন গমেজ ও সোসাইটির সিনিয়র পাবলিক রিলেশন অফিসার যোসেফ ডি' রোজারিও প্রকল্প চারটি পরিদর্শণ করেন। সরেজমিনে এই প্রকল্প সমূহের ২,৩ ও ৪ নং প্রকল্পে বাউন্ডারী দেয়াল নির্মাণ ও বালু ভরাটের প্রয়োজনীয়তার কথা সবাই অনুভব করেন। উল্লেখ করা যেতে পারে যে, এই প্রকল্পে সোসাইটির প্রায় ৫০ বিঘা জমি আছে যেখানে প্রায় আড়াইশত পরিবার বসবাস করবে বলে আমরা আশাবাদী।

ভাটারা প্রকল্পের এলোটিদের নিয়ে সভা:


পর্যায়ক্রমে তিনটি সভা ভাটারা প্রকল্প সমূহের এলোটিদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হয়। সভাসমূহে সভাপতিত্ব করেন সোসাইটির চেয়ারম্যান আগষ্টিন পিউরীফিকেশন। এই সভায় সকল এলোটি প্রকল্পের উন্নয়নের বিষয়ে সহমত প্রকাশ করেন এবং সোসাইটিকে উন্নয়ন কাজ চালানোর জন্যে অনুরোধ করেন।

সোসাইটির বার্ষিক বনভোজন(২ মার্চ ২০১৩):


দি মেট্রোপলিটান খ্রীষ্টান কো-অপারেটিভ হাউজিং সোসাইটির বার্ষিক বনভোজন ২ মার্চ ২০১৩ খ্রীষ্টাব্দে অনুষ্ঠিত হয়। আনন্দ রিসোর্ট, শফিপুর, গাজীপুরে এই বিনোদনমূলক অনুষ্ঠানে সোসাইটির কর্মকর্তা, স্ট্যাফ ও তাদের পরিবারবর্গ, উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য-সদস্যাবৃন্দ, প্রাক্তন কমিটির সদস্য-সদস্যাবৃন্দ, শুভানুধ্যায়ীসহ প্রায় দুইশত সদস্য-সদস্যা অংশগ্রহণ করেন। বনভোজনের আনন্দের মাত্রাকে বাড়িয়ে দিয়েছিল ক্রিড়া প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। উল্লেখ করা যেতে পারে যে সোসাইটির চেয়ারম্যান আগষ্টিন পিউরীফিকেশন দু'টি আধুনিক গান পরিবেশন করে সবাইকে মুগ্ধ করেন।

আন্তর্জাতিক নারী দিবস উদযাপন(৯ মার্চ ২০১৩):


৯ মার্চ ২০১৩ সোসাইটির পক্ষ থেকে আন্তর্জাতিক নারী দিবস সাড়ম্বরে পালিত হয়। সোসাইটির চেয়ারম্যান আগষ্টিন পিউরীফিকেশনের সভাপতিত্বে এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন গাজীপুর ৫ আসনের মাননীয় এমপি মেহের আফরোজ চুমকি। বিশেষ াতিথি ছিলেন ড. এডভোকেট ফস্টিনা পেরেরা, অপরাজেয় বাংলাদেশ এর নির্বাহী পরিচালক ও ন্যাশনাল কনভেনর, জাতীয় শিশু ও নারী নির্যাতন কমিটি মিসেস ওয়াহিদা বানু। অনুষ্ঠানে দুই শতাধিক সদস্যা উপস্তিত ছিলেন। দিবসটি উপলক্ষে একটি বর্নাঢ্য র‌্যালী সোসাইটির অফিস থেকে ফার্মগেট এলাকা প্রদক্ষিণ করে।

মহামান্য আর্চবিশপের সাথে মতবিনিময়(১১ মার্চ ২০১৩):


১১ মার্চ ২০১৩ বিকেল ৫ টায় খ্রীষ্টাব্দ সোসাইটির কর্মকর্তাগণ চেয়াম্যান আগষ্টিন পিউরীফিকেশনের নেতৃত্বে ঢাকা মহাধর্মপ্রদেশের মহামান্য আর্চবিশপ প্যাট্রিক ডি' রোজারিও সিএসসি এর সাথে দেখা করতে আর্চবিশপ ভবনে যান। এসময় চেয়ারম্যানের সাথে ছিলেন ভাইস-চেয়ারম্যান অনিল লিও কস্তা, সেক্রেটারি, ট্রেজারার, ডিরেক্টরগণ যথাক্রমে ফ্রান্সিস গোমেজ বাবুল, অধ্যাপিকা রুবী ইমেল্ডা গমেজ, সুশান্ত টি. রিবেরু, ইমানুয়েল বাপ্পী মন্ডল, লোন কমিটির সেক্রেটারি সাগর চার্লস রোজারিও, সোসাইটির সিনিয়র পাবলিক রিলেশন অফিসার যোসেফ ডি' রোজারিও এবং নীড় এর বার্তা সম্পাদক যোসেফ স্টিভ কস্তা। এসময় আর্চবিশপের সাথে ছিলেন ঢাকা মহাধর্মপ্রদেশের সহকারী বিশপ ও ভিকার জেনারেল থিওটনিয়াস গমেজ সিএসসি। নেতৃবর্গ আর্চবিশপের সাথে দীর্ঘ দুই ঘন্টা মতবিনিময় করেন এবং সোসাইটির কাজে আচবিশপের সহযোগিতা কামনা করেন। আর্চবিশপ ন্যায়ের পক্ষে থেকে সকলকে কাজ করার জন্যে পরামর্শ প্রদান করেন।

এলোটিদের কাছে নন্ধদ্ভং টের চাবি হস্তান্তর(২২ মার্চ):


বিগত ২২ মার্চ সোসাইটির অফিসে আনুষ্ঠানিকভাবে সোসাইটির কাফরুল প্রকল্পের নীড়-১০ এর চাবি হস্তান্তর করেন সোসাইটির চেয়ারম্যান আগষ্টিন পিউরীফিকেশন। সম্মানীত এলোটি মিসেস লাকী তালুকদার চাবি গ্রহণ করেন এবং কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন যে, মাত্র ১০ লক্ষ টাকা পেমেন্ট দিয়ে নন্ধদ্ভং টের চাবি হাতে পেয়ে তিনি সত্যই খুশী।

ছাত্র প্রকল্পের সার্টিফিকেট প্রদান(২৪ মার্চ ২০১২):


সোসাইটির ছাত্র প্রকল্পে যারা কাজ করেছে তাদের সার্টিফিকেট আনুষ্ঠানকভাবে প্রদান করেন সোসাইটির চেয়ারম্যান আগষ্টিন পিউরীফিকেশন। ২৪ মার্চ একটি সংক্ষিপ্ত অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ডিসেম্বর ২০১২ পর্যন্ত এ প্রকল্পে দু বছর সেবাদানকারী ১৫ জন ছাত্রছাত্রীকে এই সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়।

শিক্ষা সেমিনার পাগাড়(১৭ মে ২০১৩):


১৭ মে ২০১৩ সকাল ১১টায় সোসাইটির বর্তমান কমিটির প্রথম শিক্ষা সেমিনার পাগাড় সেন্ট বারবারা অডিটরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়। সেমিনারে আট শতাধিক সদস্য-সদস্যা অংশগ্রহন করে। সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন স্খানীয় মুরুব্বী মি. বার্নাভী কুইয়া। প্রধান অতিথি ছিলেন মাউসাইদ ধর্মপল্লীর পালক পুরোহিত অমল ডি' ক্রুশ। বিশেষ অতিথি ছিলেন মাউসাইদ খ্রীষ্টান কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মি. ডেভিড প্রবীন রোজারিও, পাগাড় খ্রীষ্টান কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মি. জন গমেজ। সোসাইটির চেয়ারম্যান আগষ্টিন পিউরীফিকেশন, ভাইস-চেয়ারম্যান অনিল লিও কস্তা, ম্যানেজার রতন হিউবার্ট পিউরীফিকেশন, ডিরেক্টরগণ ফ্রান্সিস গোমেজ বাবুল, সুশান্ত টি. রিবেরু, ইমানুয়েল বাপ্পী মন্ডল, মিল্টন এস. রোজারিও, সুপারভিশন কমিটির সেক্রেটারি ভিক্টর শেখর রোজারিও, লোন কমিটির সেক্রেটারি সাগর চার্লস রোজারিও, সদস্য তৃপ্ত চিরান ও উজ্জ্বল ফ্রান্সিস রিবেরু উপস্খিত ছিলেন। উপদেষ্টাদের মধ্যে বিজয় ভিনসেন্ট গমেজ, সুনীল সেলেষ্টিন কস্তা, নিকোলাস ডানিয়েল কস্তা, নিকোলাস গমেজ উপস্খিত ছিলেন। এছাড়াও স্খানীয়দের মধ্যে মারিনো সরকার, হেনেসি ডি' কস্তা, ৮ নং ওয়ার্ডের সাবেক কমিশনার ও টঙ্গি পৌরসভার প্যানেল মেয়র জনাব আসাদুর রহমান কিরণ, জনাব আলহাজ্ব ইসমাইল শেখ ও জনাব আজমিরি খান উপস্খিত ছিলেন।।/span>

শিক্ষা সেমিনার লক্ষীবাজার(১৮ মে ২০১৩):


১৮ মে ২০১৩ সন্ধ্যা ৭টা লক্ষèীবাজার এলাকায় বসবাসরত সোসাইটির সম্মানীত সদস্য-সদস্যাদের জন্যে আর্চ বিশপ টি. এ.গাঙ্গুলী মেমোরিয়াল হলে একটি শিক্ষা সেমিনারের আয়োজন করা হয়। সভাপতিত্ব করেন মি. ফেলিক্স রোজারিও। উপস্খিত ছিলেন সোসাইটির চেয়ারম্যান আগষ্টিন পিউরীফিকেশন, ভাইস চেয়ারম্যান অনিল লিও কস্তা, ম্যানেজার রতন হিউবার্ট পিউরীপিকেশন, ডিরেক্টরগণ সুশান্ত টি. রিবেরু, ইমানুয়ের বাপ্পী মন্ডল, জন গমেজ, সুপারভিশন কমিটির সেক্রেটারি ভিক্টর শেখর রোজারিও,সদস্য রনেল গমেজ, লোন কমিটির সেক্রেটারি সাগর চার্লস রোজারিও, সদস্য তৃপ্ত চিরান ও উজ্জ্বল ফ্রান্সিস রিবেরু। উপদেষ্টা মন্ডলীর মধ্যে উপস্খিত ছিলেন মি. আদম ডি' কস্তা, মি.রতন এফ কস্তা ও মি. নিকোলাস গমেজ। এছাড়াও লক্ষèীবাজার খ্রীষ্টান কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইলারিশ আর গমেজ, সেক্রেটারি রঞ্জন পিউরীফিকেশন, নাগরী ক্রেডিটের চেয়ারম্যান প্রদীপ আগষ্টিন গমেজ, এডুয়ার্ড রঞ্জন রোজারিও, প্রদীপ ভি. রিবেরু প্রমূখ উপস্খিত ছিলেন।

ভক্তনগণ কমিশনের অনুষ্ঠানে চেয়ারম্যান(২৮ মে ২০১৩):


২৮ মে ২০১৩ খ্রীষ্টভক্ত জনগণ কমিশনের বিশেষ আহবানে সোসাইটির মাধ্যমে ভক্তজনগণের সেবা বিষয়ক প্যানেল আলোচনায় অংশ গ্রহণ করেন সোসাইটির চেয়ারম্যান আগষ্টিন পিউরীফিকেশন। অনুষ্ঠানে সভাপতি ছিলেন ঢাকা মহাধর্মপ্রদেশের আর্চবিশপ প্যাট্রিক ডি' রোজারিও সিএসসি. প্যানেল আলোচনায় অন্যান্নদের মধ্যে ছিলেন সেন্ট ভিনসেন্ট দ্য পলের ফ্রান্সিস ঘরামি, বিসিএম এর পক্ষে সেন্ড্রি ফ্রান্সিস পেরিস ও পালকীয় পরিষদের পক্ষে মিসেস করুনা গমেজ। আগষ্টিন পিউরীফিকেশন সোসাইটির মাধ্যমে মান্ডলিক কাজে অংশগ্রহণের বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন এবং সকলকে নিশ্চিত করেন যে আগামীতেও সোসাইটি ভক্তজনগণের কল্যানে সম্ভাব্য সকল সহযোগিতা প্রদান করে যাবে।